ঢাকা, ১৮ই জুলাই, ২০২৪ ইং | ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ | ১২ই মুহাররম, ১৪৪৬ হিজরী

চীনে বাংলাদেশ পাকিস্তান ক্রিকেট টুর্নামেন্ট


প্রকাশিত: 8:44 PM, February 16, 2022

মোঃ আহনাফ তাহমিদ আনন, (সিনো-বাংলা নিউজ): ভাষার মাস উপলক্ষ্যে চীনে অধ্যয়নরত বাংলাদেশি শিক্ষার্থী এবং পাকিস্তানী শিক্ষার্থীদের নিয়ে আয়োজন করা হয়েছে ৫ ম্যাচের একটি ক্রিকেট সিরিজ টুর্নামেন্ট। প্রথম আলো বন্ধুসভা চীন শাখার উদ্যোগে এই সিরিজ টুর্নামেন্ট আয়োজন করা হয়।

সিরিজ টুর্নামেন্ট ৩-২ ব্যবধানে সিরিজ জয় করেছে পাকিস্তান। ফেব্রুয়ারীর ১১ তারিখ থেকে ১৫ তারিখ পর্যন্ত নানজিং ইউনিভার্সিটি অফ ইনফরমেশন টেকনোলজি এর স্টেডিয়ামে চলে এই ক্রিকেট সিরিজ টুর্নামেন্ট। ম্যাচ পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন, প্রথম আলো বন্ধুসভা চীন শাখা আহবায়ক কমিটির সদস্য আহনাফ তহমিদ আনন।

সিরিজের ফাইনাল ম্যাচে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, রিসার্চ সোসাইটি প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক গবেষক মোঃ জালাল উদ্দীন, গবেষক সঞ্জিত কুমার মন্ডল,গবেষক মো: আরফান আলী ও চীনা গবেষক ইয়াং লুই।

প্রথম ম্যাচে টসে জিতে আরাফাত আকন্দের নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ দল সংগ্রহ করে ১১৫ রান। জবাবে মোহাম্মদ করিমের নেতৃত্বাধীন পাকিস্তান দল সংগ্রহ করে ৮৫ রান। দ্বিতীয় ম্যাচে পাকিস্তানের করা ১০৬ রানে জবাবে বাংলাদেশ ১০১ রান করে ম্যাচ হেরে যায়। তৃতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ সংগ্রহ করে ১৫০, জবাবে পাকিস্তান করে ১০৫ রান। চতুর্থ ম্যাচে পাকিস্তানের করা ১৩৪ রানের জবাবে বাংলাদেশে করে ১৩০ রান।

২-২ সমতায় থাকা দুই দল সিরিজ জয় করতে ১৫ ফেব্রুয়ারী মাঠে নামে দুই দল। শেষ ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে পাকিস্তান সংগ্রহ করে ১২৪ রান। এর জবাবে ১০ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশ সংগ্রহ করে ৮৫ রান।

ফাইনাল ম্যাচ জিতে পাকিস্তান ৩-২ ব্যবধানে সিরিজ নিজেদের করে নেয়। শেষ ম্যাচে দুই দল থেকে দুইজন ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ ঘোষণা করা হয়। পাকিস্তানের মোহাম্মদ নবী এবং বাংলাদেশের আরাফাত আকন্দকে ম্যান অফ দ্যা সিরিজ ঘোষণা করা হয়।

ফাইনাল ম্যাচের অতিথি চীনা গবেষক ইয়াং লুই জানান, এমন আয়োজনে থাকতে পেরে তিনি অনেক খুশি। খেলাধুলার মাধ্যমে মানুষের মধ্যে সংস্কৃতির বিনিময় ঘটে।

বাংলাদেশ দলের ক্যাপ্টেন আরাফাত আকন্দ বলেন, ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এবং বিদেশের মাটিতে দেশকে তুলে ধরার চেষ্টা ছিল তাদের। তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশি হিসেবে আমরা গর্বিত। কারণ বাংলাদেশের সন্তানেরাই নিজেদের জীবনের বিনিময়ে বাংলা ভাষাকে ছিনিয়ে এনেছে। সিরিজ না জিতলেও তিনি খুশি বলে জানান।

পাকিস্তানের ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ করিম উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে বলেন, “আমরা দুর্দান্ত একটি টুর্নামেন্ট খেললাম। বাংলাদেশ ভাল খেলেছে। এমন আয়োজনে সবাই খুশি”।

ম্যাচ শেষ অতিথিরা বিজয়ী দলের হাতে ট্রফি তুলে দেন অতিথিরা। খেলার মাধ্যমে মাতৃভাষা দিবস কে সামনে রেখে এই আয়োজন ছিল ভিন্ন কিছু।